ইবি পরিবহন পুলে দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাসের সংযোজন

568
ইবি পরিবহন পুলে দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাসের উদ্বোধন
ইবি পরিবহন পুলে দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাসের উদ্বোধন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী আজ (১৯ অক্টোবর) ৫২ সীটের দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাস উদ্বোধন করেছেন। দুপুর ১২টায় প্রশাসন ভবন চত্বরে বাস দুইটি উদ্বোধনকালে ভাইস চ্যান্সেলর বলেন, বর্তমান প্রশাসন দায়িত্ব গ্রহণের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্বল পরিবহন খাতকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে তোলার জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়।

কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেট ঘাটতির প্রধান কারণ এই পরিবহন খাত। তিনি জানান, ছয়টি কোস্টার গাড়ি আমরা পরিবহন পুলে সংযুক্ত করেছি, যা শিক্ষক-কর্মকর্তারা ব্যবহার করছেন। আর নতুন এ বাস দুইটি শিক্ষার্থীরা ব্যবহার করবে।
প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, বর্তমান প্রশাসনের নেতৃত্বে উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। পরিবহন পুলে দুইটি নতুন গাড়ি সংযুক্ত হওয়ায় ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা আনন্দ প্রকাশ করে বলেন, আমরা এভাবেই এগিয়ে যেতে চাই।

ইবি পরিবহন পুলে দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাসের সংযোজন
ইবি পরিবহন পুলে দুইটি অত্যাধুনিক হিনো বাসের সংযোজন

পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এইচ. এম. আলী হাসান-এর সঞ্চালনায় এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ কামাল উদ্দিন, পরিবহন প্রশাসক প্রফেসর ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম, প্রফেসর ড. কাজী আখতার হোসেন বক্তব্য প্রদান করেন। রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস.এম. আব্দুল লতিফ, প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান প্রমুখ এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন। #সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ “তথ্য, প্রকাশনা ও জনসংযোগ দপ্তর” এ ছবিসহ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্প্ররকাশিত করেন। ফেসবুকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর ছবিতে বাসের গায়ে “ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ২০১৯” লেখায় ছাত্রছাত্রী সহ অনেকে ফেসবুকে বিভিন্ন রকমের কমেন্ট করছেনে।

মো: সিহাব উদ্দীন নামে একজন লিখেছেন, “ধন্যবাদ ইবি প্রশাসনকে । অতিদ্রুত ২০১৯ লিখাটা মুছে প্রমান করে দিন । ভার্সিটির নামের সাথে ২০১৯ দেখে রাস্তার লোকজন হাসাহাসি করলে এর দায় আপনাদেরও ।”

শেখ রাসেল নামে একজন লিখেছের, “২০১৯ নামের সাথে কেন?!!” ছাত্রছাত্রীদের দামী বিশ্ববিদ্যালয়ের একক নাম সর্বত্র ব্যবহার হোক।

ক্যাম্পাস বার্তা/অ/এডি/২০/১০/২০১৯